সুধীর চক্রবর্তী

জন্ম ১৯৩৪। বাংলা সাহিত্যের অধ্যাপক। বর্তমানে অবসর গ্রহণ করেছেন। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে দুবছর তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগে অতিথি অধ্যাপক হিসেবে ছিলেন। শ্রীচৈতন্য কলেজের স্নাতোকত্তর বাংলা বিভাগে অতিথি অধ্যাপক হিসেবেও ছিলেন। বারো বছর ধরে সম্পাদনা করছেন বার্ষিক সংকলন ‘ধ্রুবপদ’। গবেষনা কর্ম, মৌলিক রচনা ও সম্পাদনার কাজে খ্যাতিমান। ভালবাসেন গান আর গ্রাম। কৃষ্ণনগর এবং কলকাতায় উভচর বাসিন্দা। রবীন্দ্র্রসঙ্গীত, বাংলা গান, লোকধর্ম ও সমাজ নৃতত্ত্ব, নিম্নবর্গের সংস্কৃতি, গ্রাম্য মেলা মহোৎসব, মৃৎশিল্প, চালচিত্রের চিত্রকলা, লালন ফকির প্রভৃতি নানা বিচিত্র বিষয়ে তাঁর প্রণিধানযোগ্য বই আছে। তিনি ১৯৯৩ সালে পেয়েছেন শিরোমণি পুরস্কার, ১৯৯৫ সালে পেয়েছেন দীনেশ চন্দ্র্র সেন পুরস্কার, ১৯৯৬ সালে পেয়েছেন নরসিংহদাস পুরস্কার, ২০০২ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পেয়েছেন সরোজিনী বসু স্বর্ণপদক এবং ২০০৭ সালে পেয়েছেন বিশিষ্ট অধ্যাপক খেতাব। ‘বাউল ফকির কথা’ বইয়ের জন্য ২০০২ সালে পেয়েছেন আনন্দ পুরস্কার এবং ২০০৪ সালে পেয়েছেন সর্বভারতীয় সাহিত্য অকাদেমী সন্মান।