অঞ্জন দত্ত

অঞ্জন দত্ত জন্মেছেন কলকাতার এক ক্ষয়িষ্ণু বনেদি পরিবারে ১৯৫৩ সালের ১৯ জানুয়ারি। ছেলেবেলা কেটেছে দার্জিলিং-এ, যেখানে সবাই গিটার বাজায়। পড়েছেন সেখানকারই কনভেন্ট স্কুলে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী সাহিত্যের স্নাতকোত্তর। কিংবদন্তী নাট্যজন বাদল সরকারের কাছে অভিনয় শিখেছেন, মঞ্চলিপ্ত থিয়েটার চর্চা করছেন ১৯ বছর বয়স থেকে।   মৃণাল সেনের হাত ধরে চলচ্চিত্রে হাতেখড়ি। অজস্র সিনেমা, টেলিফিকশনে অভিনয় করেছেন। পরিচালিত ছবির সংখ্যা ১৪। নিজের লেখা ও সুর করা জনপ্রিয় গানের সংখ্যা অন্তত ৩০০। তাঁর 2441139 ছুঁয়েছে জনপ্রিয়তার শঙ্খচূড়া। গান গাওয়া শুরু করেছেন অভিনয় শুরুর অনেক পরে। ১৯৯৪ সালে প্রকাশিত হয় প্রথম গানের অ্যালবাম শুনতে কী পাও? এরপর পুরনো গিটার, কেউ গান গায়, চলো বদলাই, হ্যালো বাংলাদেশ, কলকাতা-১৬, অসময়, রং পেন্সিল—  একের পর এক জনপ্রিয় অ্যালবাম আর গান গাইতে ঘুরে বেড়ানো সারা পৃথিবী। সত্যজিৎ রায় এর চলচ্চিত্রে অভিনয় করার বিরল সৌভাগ্য হয়েছে অঞ্জন দত্তর। এছাড়া অভিনয় করেছেন মৃণাল সেন, বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, অপর্ণা সেনের চলচ্চিত্রে। হিন্দি ছবি বাড়াদিন এর মধ্য দিয়ে নিজে পরিচালনা শুরু করেছিলেন, পরিচালনা করেছেন ইংরিজি ভাষার ছবি Bow Barraks Forever ও। বং কানেকশন এ প্রথমবার যেনো খুঁজে পেয়েছেন নিজের ছবির প্রকরণ। এরপর পরিচালনা করেছেন চলো, লেটস গো, ম্যাডলি বাঙ্গালী, ব্যোমকেশ বক্সী, রঞ্জনা আমি আর আসবোনা, আবার ব্যোমকেশ, দত্ত ভার্সেস দত্ত, গণেশ টকিস ও শেষ বলে কিছু নেই। কত টিভি ফিকশন যে বানিয়েছেন তারও নেই লেখাজোখা।